|

দিল্লির ‘হিজাবি বাইকার’ রোশনি মিশবা!

প্রকাশিতঃ ৮:২৪ অপরাহ্ন | অগাস্ট ২৫, ২০২০

দিল্লির ‘হিজাবি বাইকার’ রোশনি মিশবা!

অনলাইন ডেস্কঃ গায়ে হলুদের দিনটাকে অন্যরকমভাবে স্মরণীয় রাখতে চেয়েছিলেন সোশ্যাল মিডিয়ায় এখন আলোচিত নববধূ ফারহানা আফরোজ। তাই ১৩ আগস্ট ভাই-বোন, বন্ধুদের নিয়ে মোটরসাইকেল শোভাযাত্রা করেন তিনি। ২০টির বেশি মোটরবাইক শোভাযাত্রা করেন। এরপরই থেকে সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল বিষয়টি।

মোটরসাইকেল চালিয়ে যে শুধু ফারহানা আফরোজই ভাইরাল হয়েছেন এমনটা নয়। দিল্লির ‘হিজাবি বাইকার’ নামে পরিচিত রোশনি মিশবাও বাইক চালিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়েছিলেন। এসেছিলেন আলোচনায়। তবে সেটি আজ থেকে আরো প্রায় তিন বছর আগে। ২০১৭ সালের দিকে ঘটনা। তখন দিল্লির রাস্তায় হিজাব পরে বাইক চালিয়ে সংবাদের শিরোনামেও এসেছিলেন।

ভারতের স্থানীয় গণমাধ্যমের পুরনো খবরে থেকে জানা যায় তার বাইক চালানো গল্প। মাত্র ৯ বছর বয়সেই রোশনি মিশবার মাথায় পরতে হয়েছিল হিজাব। কিন্তু নিজের স্বপ্ন আর ইচ্ছাকে মরতে দেননি রোশনি মিশবা। হিজাব মাথায় রেখেও যে নিজের স্বাধীনতার জেহাদ জিইয়ে রাখা যায় তার প্রমাণ তিনি।

তিনি আলোচনায় আসেন ২০১৭ সালে। তখন তার বয়স ছিল ২২। এমন বয়সেই ভারতের ‘হিজাবি বাইকার’র তকমা পেয়ে যান রোশনি। নয়া দিল্লির বাসিন্দা এই তরুণীর একমাত্র স্বপ্ন ছিল, বাইক চালাবেন। নিজের ইচ্ছার কথা বাবা ও বোনকে বলতেই তারাও তার পাশে এসে দাঁড়ান। মেয়ের এই স্বপ্নের দৌড়ে এখন সবসময়ের সঙ্গী বাবা।

তার প্রথম বাইক চালানোর হাতেখড়ি হয় মাত্র ৯ বছর বয়সেই। তার বিশ্বাস, কোনো কিছুই তার বাইক চালানোতে নাক গলাতে পারবে না। তিনি ২০১৭ সালে বলেন, মোটরসাইকেল রাইড করা আমার জিনে রয়েছে। বাইক চালানো হলো অ্যান্টি-ডিপ্রেশনাল। নারীদের কাছে স্বাধীনতার মানে শুধুই স্বাধীন।

সূত্র: এই সময়, নিউজ এইটিন।

দেখা হয়েছে: 1001
ফেইসবুকে আমরা

সর্বাধিক পঠিত
সম্পাদকঃ আরিফ আহম্মেদ
মোবাইলঃ ০১৭৩৩-০২৮৯০০
প্রকাশকঃ উবায়দুল্লাহ রুমি
বার্তা বিভাগ মোবাইলঃ ০১৭১২-৬৭৮৫৫৮
ই-মেইলঃ [email protected]
অস্থায়ী কার্যালয়ঃ ১নং সি. কে ঘোষ রোড, ৩য় তলা, ময়মনসিংহ।
(৭১ টিভির আঞ্চলিক কার্যালয়)।

The use of this website without permission is illegal. The authorities are not responsible if any news published in this newspaper is defamatory of any person or organization. Author of all the writings and liabilities of the author